1. abontu.ru95@gmail.com : abontu :
  2. adanbobadilla@bcd.geomenon.com : adanc1962547 :
  3. aktar.asia@gmail.com : aktar :
  4. jaidmtarik@gmail.com : campus22 :
  5. emteeaz2017@gmail.com : emteeaz :
  6. ahamedfarhad0123@gmail.com : farhad :
  7. admin@ctgcampus.com : jaid :
  8. mdmasum4882@gmail.com : masum :
  9. rafiebc0@gmail.com : rafi21 :
  10. rashedulislam.nubd@gmail.com : rashed21 :
  11. mdsadikaziz64@gmail.com : sadikaziz :
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিংঃ
বেসরকারি ছাত্র-ছাত্রীর শিক্ষাজীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা বন্ধ করুন। রাত পোহালেই বদরখালী সমিতির নির্বাচন, ভোটের মাঠে উড়ছে টাকা এসএসসির প্রশ্নফাঁস নিয়ে মামলায় যা বলা হয়েছে পছন্দের সাবজেক্টে চান্স পেলেন ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত ১১ সেপ্টেম্বর আইআইউসির ৫ম সমাবর্তন অনুষ্ঠান স্পিড ব্রেকার ও ফুটওভার ব্রিজের দাবিতে ইউএসটিসি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন খুলশীতে বাইক দূর্ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী  সহ ২জন গুরুতর আহত  এসএসসি পরীক্ষার সময় পেছালো এক ঘন্টা, শুরু হবে বেলা ১১টায় এশিয়া কাপঃ ভারতকে হারিয়ে পাকিস্তান নিল প্রতিশোধ চট্টগ্রামে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় চবি শিক্ষকের মৃত্যু

১১ আগস্ট আইআইইউসি জন্য এক বেদনার দিন

  • সময় বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২

১১ আগস্ট ২০০৬ ইংরেজি, হঠাৎ এক ভয়ংকর ঝড় আসে আইআইইউসি পরিবারে। একটি দুর্ঘটনা মুহুর্তেই লণ্ডভণ্ড করে দিয়ে যায় সবকিছু। সেই দুর্ঘটনায় মর্মান্তিকভাবে মৃত্যুবরণ করেন আমাদের বোন নেহলীন।

ভার্সিটিতে বিবিএর ডিফেন্স চলছিলো তখন। হঠাৎ একটা ফোন আসে, ক্লাস করে ফেরার সময় ভার্সিটির একটা ফিমেল বাস এক্সিডেন্ট করে। তখনও অনুমান করতে পারিনি সেই এক্সিডেন্ট এতটা ভয়াবহ হবে। ফোন পাওয়ার সাথে সাথে কল দিই বিবিএ ডিপার্টমেন্টের আমজাদ স্যারকে। যেকোন কারণে স্যার ফোন রিসিভ করেননি। তারপর এমদাদ স্যারকে ফোন দিয়ে জানানোর সাথে সাথে স্যার অথোরিটির সাথে যোগাযোগ করে ঘটনাস্থলে এম্বুলেন্স এবং দায়িত্বশীলদের পাঠিয়ে দেন। তারপর ঘটনা অনেকদূর এগিয়ে যায়। আইআইইউসি জুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া।

আহত অসংখ্য বোন কুমিরা থেকে শুরু করে চট্টগ্রাম মেডিকেলের পথ পর্যন্ত বিভিন্ন হসপিটালে হসপিটালে। চট্টগ্রাম মেডিকেলে আইআইইউসি’দের বাঁধ ভাঙ্গা ঢল। সবাই যেকোন সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত। শরীরের রক্ত দিয়ে আহত বোনদের বাঁচানোর জন্য সবাই উন্মুখ হয়ে দাঁড়িয়ে। কি এক সহমর্মিতার দৃশ্য!

নেহেলীন আমাদের ছেড়ে চলেই গেলো। আহত বোনদের সেরে উঠতে সময় লেগেছিলো দীর্ঘদিন।

আইআইইউসি তখন সবে মাত্র UGC কর্তৃক আরোপিত রেডমার্ক কলঙ্ক থেকে আমাদের দীর্ঘদিন চলতে থাকা এক আন্দোলনের পর সবেমাত্র মুক্ত হয়েছিলো। তার পর পরই এতবড় একটা ধাক্কার জন্য আমরা কেউই প্রস্তুত ছিলাম না।

আল্লাহ নেহলিনকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করুক। নেহলিনের জন্য সবার কাছে দোয়ার অনুরোধ রইলো।

স্মৃতিকথা লিখেছেন: এ এম কাউসার

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো ...

লিখুন এখানে

© All rights reserved © 2014 -22 Ctgcampus.com

Powered By Cynor Technology