1. abontu.ru95@gmail.com : abontu :
  2. adanbobadilla@bcd.geomenon.com : adanc1962547 :
  3. aktar.asia@gmail.com : aktar :
  4. jaidmtarik@gmail.com : campus22 :
  5. emteeaz2017@gmail.com : emteeaz :
  6. ahamedfarhad0123@gmail.com : farhad :
  7. admin@ctgcampus.com : jaid :
  8. mdmasum4882@gmail.com : masum :
  9. rafiebc0@gmail.com : rafi21 :
  10. rashedulislam.nubd@gmail.com : rashed21 :
  11. mdsadikaziz64@gmail.com : sadikaziz :
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:১৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিংঃ
বেসরকারি ছাত্র-ছাত্রীর শিক্ষাজীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা বন্ধ করুন। রাত পোহালেই বদরখালী সমিতির নির্বাচন, ভোটের মাঠে উড়ছে টাকা এসএসসির প্রশ্নফাঁস নিয়ে মামলায় যা বলা হয়েছে পছন্দের সাবজেক্টে চান্স পেলেন ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত ১১ সেপ্টেম্বর আইআইউসির ৫ম সমাবর্তন অনুষ্ঠান স্পিড ব্রেকার ও ফুটওভার ব্রিজের দাবিতে ইউএসটিসি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন খুলশীতে বাইক দূর্ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী  সহ ২জন গুরুতর আহত  এসএসসি পরীক্ষার সময় পেছালো এক ঘন্টা, শুরু হবে বেলা ১১টায় এশিয়া কাপঃ ভারতকে হারিয়ে পাকিস্তান নিল প্রতিশোধ চট্টগ্রামে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় চবি শিক্ষকের মৃত্যু

হিমুর বক – নুরুল আজিম ইমতিয়াজ

  • সময় রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১

চতুর্থ শ্রেণী থেকেই হোস্টেলে। শুরুর দিকে হোস্টেলে একদমই ভালো লাগত না, আস্তে আস্তে ভালো লাগতে শুরু করে। মা বলতেন, ‘দীর্ঘদিন একই জায়গায় থাকলে ঐ জায়গার প্রতি একটা ভালো লাগা কাজ করে; আমারও ঠিক তাই।

 

সপ্তম শ্রেণীর ক্লাস টেস্ট চলছে, দপ্তরী আনসার কাকা এসে বললেন, ‘করোনা সংক্রামনের আশঙ্কায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, আগামীকালের মধ্যে হোস্টেল ছাড়ার নির্দেশ।

 

করোনা মহামারীর কথা সবার মুখে মুখে। মনে ভয় থাকলেও বাড়ি ফেরার আনন্দের কাছে তা তুচ্ছ। বহুদিন পর মায়ের মুখ দেখার জন্য অস্থির হয়ে উঠছি। ব্যাগ-ট্যাগ গুছিয়ে বাস টার্মিনালে চলে আসলাম৷

 

টার্মিনালে ভিড় আর ভিড কোথাও পা ফেলব এই জায়গাটুকুন ও নেই। মনে হচ্ছে ঈদে বাড়ি ফিরছি। অনেক কষ্টে একটা টিকিট ফেলাম তাও আবার ঝুলে ঝুলে যেতে হবে। কোন ব্যাপার না, ঝুলে ঝুলে বাড়ি ফেরারও একটা তৃপ্তি আছে।

 

সারাদেশ লকডাউন, ইতোমধ্যে করোনা মহামারী আকার ধারণ করেছে। চারদিক থেকেই আক্রাতের খবর আসছে… বাড়ি থেকে বের হতেই দেয় না।

 

বাড়ির চারদিকে সবুজ বেষ্টিত মাঝখানে আমাদের বাড়ি। আসলেই আমাদের বাড়িটা বাবার রুচিমাফিক গড়ে উঠেছে, বাড়ির চারপাশে আম, জাম,লিচু, কাঠাল, আমড়া,লেবু সহ নানারকম বাহারি ফল আর ঔষধি বৃক্ষ দ্বারা সাজানো। বাবা বলেন, ফরমালিন মুক্ত তাজা ফল খেতেই এই উদ্যেগ।

 

মা ছোটো ভাইকে হিমু নামেই ডাকে। এই হিমু নামের কারণে তাকে তাজকিয়া ব্যঙ্গ করে ‘হিমুর রুপা কয়’ বলে ডাকে এতে সে দারুণ লজ্জা পায়, মাঝে মাঝে লুকিয়ে কান্নাও করে। গল্পের হিমু কেমন আমি জানি না, তবে আমার ভাইয়ের স্বপ্ন ফুটবলার হওয়া, শখ বডশি দিয়ে মাছ ধরা। বাড়ি আসার পর থেকে দেখছি, বাড়ির পশ্চিমে বয়ে যাওয়া কুমারী নদীর পাশে বসে থাকে, সাথে ছোট্ট একটি বকের ছানা। বডশি দিয়ে যা মাছ ধরে , তা বকের ছানাকে খাওয়ায়। সে পরম আদর যত্নে বকের ছানাটা কে বড় করতে লাগলো।

 

আম্মুর বকুনিতে সে বকটা ছেড়ে দিল। বকটা উড়ে গিয়ে ডালে বসে কিছুক্ষণ পর আবার ফিরে আসে হিমুর কাছে। প্রথম দেখলাম বকের মতো একটা শিকারী পাখিও মানুষের পোষ মানে। সারাক্ষণ হিমুর সাথে বক আর বকের সাথে হিমু লেগেই থাকে। এভাবে প্রায় মাস পেরুলো। একদিন হিমু বাড়িতে বক রেখে বড়শি কেনার জন্য বাজারে গেলে। কেউ একজন এসে বকটা চুরি করে নিয়ে যায়। বাজার থেকে এসে খবর পেলে। সে ছুটে যায় বকের খোঁজে । সে যখন ছেলেটার বাড়ি পৌছল এবং যে দৃশ্য দেখতে পেলো, সে দৃশ্য ছিল মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার মতো। বকটা ইতোমধ্যে জবাই করে ফেলছে। কি কান্না! কেউ তাকে থামাতে পারছে না। একটা বক মানুষের কতটা প্রিয় হলে বক হারানোর শোকে এভাবে কান্না করে। ৩দিন পর মা অনেক জোর করে কিছু খাওয়ালো।

 

এই মহামারীতে যাদের প্রিয়জন হারিয়েছে, তারাও কি হিমুর মতো কাঁদছে? কে বা জানে?

 

কত কষ্ট জমা হলো

খোলা চিঠির ঐ খামে,

কোন হাটেই বিক্রি হবে

বড়শি কেনার ঐ দামে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো ...

লিখুন এখানে

© All rights reserved © 2014 -22 Ctgcampus.com

Powered By Cynor Technology